fbpx

brands swiss https://it.upscalerolex.to. this is an online replica watch store to buy quality https://montrereplique.to. fr.upscalerolex.to contact up to 30 first copy watches suppliers. https://www.replicasrelojes.to/ are all found here. es.wellreplicas.to of men's wrist watches was officially launched at the first time. tooth write plus carving skill might focus on a astonishing superior with high quality es.upscalerolex.to. pt.watchesbuy.to is also available with delicate watches for women. pt.wellreplicas.to for sale in usa recognized command with dining room table ceremony. welcome to our datewatches.com shop. best rolex replica with professional customer services.

ইহরামের কাপড় কীভাবে পরবেন?

ইহরাম অবস্থায় প্রবেশের আগে পুরুষের ইহরামের কাপড় পরা অত্যাবশ্যক এবং সেটা মীকাত অতিক্রম করার আগেই। ইহরামের পোষাক মূলত দু’প্রস্ত সেলাইবিহীন সাদা কাপড়; এর এক প্রস্ত লুঙ্গির মত পরতে হয় এবং অপরটি চাদরের ন্যায় গায়ে জড়িয়ে নিতে হয়।

কখন পরবেন?

বাংলাদেশ, ভারত, ও পকিস্তান প্রভৃতি পূর্বাঞ্চলীয় লোকদের জন্য মীকাতের জন্য নির্ধারিত স্থানটি হল ইয়ালামলাম (মক্কা থেকে দক্ষিণপূর্বে অবস্থিত একটি পহাড়ের নাম)। তাই এ স্থানটি অতিক্রম করার পূর্বেই ইহরাম বেঁধে নিতে হবে।  মীকাত অতিক্রমকরা কালীন সময়ে প্লেনের ভিতর থাকা পড়ে, তাই প্লেনে উঠার আগেই পরে নেওয়া উত্তম। অনেক সময় এয়ারপোর্টে পরতে ঝামেল হতে পারে, তাই চাইলে ঘরে থেকে ইহরামের কাপড় পরে নেওয়া যেতে পারে।

আপনার বাসস্থান যদি ঢাকা থেকে অনেক দূরে হয় সেক্ষেত্রে হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে এয়ারপোর্টে এসে ইমিগ্রেশন অতিক্রম করে সলাতের জন্য নির্ধারিত স্থানে গিয়ে ইহরামের কাপড় পরে নিতে পারেন।

কি কি প্রয়োজন

১) ইহরামের কাপড়
২) ইহরাম বেল্ট
৩) আতর

পরার আগে কি করতে হবে?

১) প্রয়োজনীয় ক্ষৌর কার্য সম্পন্ন করে নিবেন
২) গোসল করে নিবেন (প্রিয় সাবান ও শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন এবং অভ্যাস থাকলে গন্ধহীন তেল মাথায় ব্যবহার করতে পারেন)
৩) মাথায় প্রচুর পরিমানে আপনার সবথেকে পছন্দের আতর মেখে নিবেন। খেয়াল রাখবেন আপনার আতরের গন্ধ যেন অন্যের নাককে কষ্ট না দেয়। যদি আপনার কাছে কোন আতর না থাকে তাহলে আমাদের অনলাইন স্টোর থেকে আতর কিনে বাসায় বসে পেতে পারেন)

উম্মুল মু’মিনীন আয়েশা رضي الله عنها বলেন, ❝ রাসূলুল্লাহ صلى الله عليه وسلم ইহরাম গ্রহণের সময় তাঁর সর্বাধিক উত্তম সুগন্ধিটি ব্যবহার করতেন। তিনি বলেন, ইহরাম বাঁধার পর তার শ্মশ্রু ও শির মোবারকে তেলের ঔজ্জ্বল্য দেখতে পেতাম।❞ [মুসলিম: ১/৩৭৮]
৪) চুল (যদি কিছু থাকে!) সুন্দর করে আঁচড়িয়ে নিবেন
৫) শরীরেও কিছু আতর মেখে নিবেন (বিশেষ করে বক্ষদেশে)। খেয়াল রাখবেন ইহরামের কাপড়ে সরাসারি আতর মাখাবেন না। তবে শরীর থেকে কিছু লেগে গেলে তাতে কোন সমস্যা হবে না

নীচের অংশ (ইজার) কিভাবে পরবেন

ইজার দেখতে সেলাইবিহীন লুঙ্গীর মত হলেও একই ভাবে পরা যাবেনা। অনেক রকম কায়দায় পরা যায়। সবথেকে সহজ এবং ব্যবহারিক দিক থেকে যেটা সবচেয়ে সুবিধাজনক (আমার কাছে মনে হয়েছে) সেটাই দেখানো হলোঃ .

উপরের অংশ (রিদা) কিভাবে পরবেন

রিদা পরা একদম সহজ। ঠিক আমরা যেভাবে চাদর পরে অভ্যস্ত সেভাবেই পরলেই হবে। 

ইদতিবা করার সময় রিদা কিভাবে পরবেন

  • রিদার উপর দুই কোনা দুই হাত দিয়ে ধরুন। বাম হাত ঘাড়ের উপর বরাবার রাখুন আর ডান হাত নিচের দিকে সোজা করে ঝুলিয়ে রাখুন
  • বাম হাতের কোনার অংশটা ঘাড়ের উপর দিয়ে বুকের উপর দিয়ে ঝুলিয়ে রাখুন
  • ডান হাতের কোনাটি বগলের নিচ দিয়ে নিয়ে বুকের উপর দিয়ে বাম ঘাড়ের উপ্র দিয়ে পিছনে ঝুলিয়ে দিন

ইহরাম পরার পর নিচের বিষয়গুলি খেয়াল রাখবেনঃ

১) বসার সময় একটু মাথায় রাখবেন যে ভিতরে কোন আন্ডারগার্মেন্টস পরা নাই
২) ইজার গোঁড়ালি এবং হাঁটুর মাঝামাঝি বা আর একটু উপরে পরতে; এতে চলতে ফিরতে সুবিধা হবে
৩) পুরুষের নাভি আওরাহ এর অন্তর্ভুক্ত, তাই খেয়াল রাখবেন কোন অবস্থাতেই যেন তা বের না হয়ে যায় (ইজার দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে)
৪) সেজদাহ এর সময় খেয়াল রাখবেন পিছনের কাপড় ঠিক-ঠাক আছে
৫) ক্রস-লেগ স্টাইলে না বসায় উত্তম

আরো পড়ুনঃ ইহরাম অবস্থায় বর্জনীয় কাজসমুহ

টোকাঃ এই প্রবন্ধটি হাজি সাহেবের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে লেখা। যদি ভালো কোন মতামত থাকে যেটা অন্যান্য হাজিদের উপকারে আসবে তাহলে কমেন্ট  বক্সে লেখার জন্য অনুরোধ রইল। #শেয়ার-দি-খাইর

Leave a Reply

seventeen + eighteen =

0
    0
    Your Cart
    Your cart is emptyReturn to Shop